Category: জীবন ও ধর্ম

আপনে জানেন কি? ১৪০০ বছর আগে থেকে কেউ একজন আপনাকে ভালবাসে।তিনি হলিন আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ)

চোখের পানি ধরে রাখতে পারবেন না কিয়ামতের দিন হাশরের ময়দানে যখন সবাই ‘ইয়া নাফসী, ইয়া নাফসী’ বলে ডাকবে তখন একজনইথাকবেন। যে স্বার্থহীন পরম আপনজন আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) …………।। ”সব নবী, বড় বড় আউলিয়া ,শহীদ,মুজাহিদ,মা- বাবা ,ভাই বোন কেউ আর আপন থাকবে না। সবার একই সুর ‘ইয়া নাফসী’,

“মসজিদের নামাজ পড়ার সময় বাচ্চারা আওয়াজ করলে চড় থাপ্পর এই সব কি ঠিক??

“নামাজ পড়ার সময় বাচ্চারা আওয়াজ করলে চড় থাপ্পর এইসব কি ঠিক?? “নামাজ পড়ার সময় যদি পেছনের সারি থেকে বাচ্চাদের হাসির আওয়াজ না আসে, তাহলে পরবর্তী প্রজন্মের ব্যাপারে ভয় করুন” – এই কথাগুলো তুর্কীর মসজিদে দেওয়ালে লিখা থাকে। ওমানের মসজিদে নামাজ আদায় করার সুযোগ হয়েছে আমার। প্রায় সবখানে দেখলাম বাচ্চারা মসজিদে

রুটি চুরি করে খাওয়ার জন্য এত কঠিন শাস্তি দিলো ছোট্ট দুটি শিশুকে। এ কেমন বিচার ব্যবস্থা।

[লিখাটি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। পড়ার পর অনুগ্রহ করে লাইক এবং শেয়ার করবেন। যেন অন্যরাও পড়তে পারেন। মনে রাখবেন একটা লাইকের চেয়ে একজন পাঠকের পড়াটাই সবচেয়ে বেশি জরুরি। তাই বেশি বেশি শেয়ার করুন ] ইউফ্রেটিস নদীর উত্তর দিকে অবস্থিত সিরিয়ার একটি শহর রাকা।(Ar Raqqah) । সেখান থেকে খলিফা হারুন উর রশীদের

নিজে সচেতন হোন অন্যকেও সচেতন হওয়ার জন্য লেখাটি শেয়ার করুন ।

আমেরিকান ডাক্তাররা মানুষের শরীরে এক নতুন ক্যান্সার খুঁজে পেয়েছেন যার কারন Silver Nitro Oxide. যখন আপনি মোবাইল কার্ড নোখ দিয়ে ঘসিয়ে তোলেন তখন এটি আপনার শরীরে স্কিন ক্যান্সারের কারণ হয়ে দাড়াতে পারে। বাম কানে ফোনে কথা বলবেন না। ঠান্ডা পানি দিয়ে ঔষধ খাবেন না। রাতের বেলায় ভারী খাদ্য খাবেন না।

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে চাকরি দেওয়ার কথা বলে সত্তর লক্ষ টাকা নিয়ে উধাও ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট।

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে চাকরি দেয়ার কথা বলে প্রায় সত্তর লক্ষ টাকা নিয়ে শিউলী আক্তার (৩০) নামে এক ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট বৃহস্পতিবার দুপুরে পালিয়ে যায়। এদিকে টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য শতাধিক মানুষ ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট শিউলী আক্তারের সদ্য বিবাহিত স্বামী মো. রফিকুল ইসলামের বাড়িতে ভিড় জমিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে কটিয়াদী উপজেলার মসূয়া ইউনিয়নের চর আলগী

পশ্চিম বা উত্তর দিকে পা দিয়ে শুয়া বা ঘুমানো নিষেধাজ্ঞা আছে নাকি? এই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন কোরআন হাদিসের আলোকে ।

পশ্চিম দিকে পা দিয়ে- পশ্চিম বা উত্তর দিকে পা দিয়ে ঘুমানো কি নাজায়েজ? আমার বাবা আমাকে এভাবে পা দিয়ে ঘুমাতে দেন না। তাঁর মতে, এটা নাকি গুনাহের কাজ। এ নিয়ে তাঁর সঙ্গে আমার অনেক তর্ক-বিতর্ক হয়। এই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন । পশ্চিম বা উত্তর দিকে পা দিয়ে ঘুমানো নিষেধ—এমনটি

ক্রিকেটার হিসেবে আমি যখন জিতি, জয় হয় আমার মায়েরই।

মায়ের কথা শুরুর আগে একটু বলে নিই, আমি আমার বাবার ভীষণ নেওটা ছিলাম। বাবা যখন বেঁচে ছিলেন, আমার সবকিছু তিনিই দেখতেন। ১১-১২ বছর বয়সে বাবাকে হারালাম। বাবা মারা যাওয়ার পর মা একই সঙ্গে দুটি ভূমিকা পালন করলেন। তিনি মা, তিনিই আবার বাবা। ছেলেবেলায় বাবাকে হারানোর পর সব দায়িত্ব মা নিজের

যে গ্রামে মানুষ একবার ঘুমিয়ে পড়লে সেই ঘুম ভাঙ্গে ছয় দিন পর।

কালাচি নামে কাজাখস্তানের একটি গ্রামে একবার ঘুমিয়ে পড়লে, সেই ঘুম ভাঙে ছ`দিন পরে। অথচ চার বছর আগেও এমনটা ছিল না। বরং স্বাভাবিকই ছিল কাজাখস্তানের এই গ্রামের জনজীবন। ঘুম ভাঙার পরে নাকি তাদের কিছুই মনে থাকে না। তবে গ্রামের সবাই যে ঘুমে আচ্ছন্ন হয়ে পড়েন এমনটা নয়। মূলত শিশুরাই এই ঘুমের

ব্যাংক ডাকাতি

এক ডাকাত দল পরিকল্পনা মাফিক এক নামকরা ব্যাংকে ডাকাতির করতে গেলো। ব্যাংকে ঢুকে ডাকাত দলের সরদার বন্দুক হাতে নিয়ে সবার উদ্দেশ্যে বললো,”কেউ কোন নড়াচড়া করবেন না, টাকা গেলে যাবে সরকারের!কিন্তু জীবন গেলে যাবে আপনাদের! তাই ভাবনা চিন্তা করে আপনাদের পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করুন।” এই কথা শোনার পর, সবাই শান্ত হয়ে

শয়তান কিভাবে নিষ্পাপ মানুষের অন্তরে ধোঁকা দিয়ে ধীরে ধীরে পাপকাজ করতে বাধ্য করায় তাঁর একটি বাস্তব উদাহরণ ।

একটি সুন্দর শিক্ষণীয় ঘটনা । ঘটনাটি সবাইকে পড়ার অনুরোধ রইলো।কথা দিলাম ঘটনাটি পড়ে আপনার জীবন বদলে যেতে পারে। বনী ইসরাইলের সময় এক ছোট্ট গ্রামে বারসিসা নামে অত্যন্ত ধার্মিক এক ব্যক্তি ছিল। তাকে সন্ন্যাসী বলা যেতে পারে। সে আল্লাহর একত্ববাদে বিশ্বাস করত এবং বিশ্বাস করত যে ঈসা আলাহিস সালাম আল্লাহর একজন

পবিত্র শবে বরাত ১ মে

হিজরি ১৪৩৯ সনের পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ায় ১ মে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র লাইলাতুল বরাত পালিত হবে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররমের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ড. মোয়াজ্জেম হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন

২০১৮ সালের পবিত্র রমজানের রোজার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচী।

আগামী ১৭ মে ২০১৮ থেকে শুরু হবে পবিত্র রমজান মাস যদি ১৪৩৯ হিজরি সনের শাবান মাস ২৯ দিনে শেষ হয় । আর যদি শাবান মাস পূর্ণ ৩০ দিনে সম্পন্ন হয় তবে ১৮ মে থেকে শুরু হবে এবারের রমজান মাস। ইসলামি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ ২০১৮ সালের রমজানের সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ

কবর পাকা করার বিষয়ে মহানবী (সা.)-যা বলে গেছেন!!

কবর পাকা করাকে সাধারণত না জায়েজ বলা হয়। আবার অনেক সময় দেখা যায় পূর্ববর্তী বূযুর্গদের (পীর/ আওলিয়া) কবরগুলো প্রায় সবই পাকা করা। হযরত শাহ ওয়ালীউল্লাহ(রহ.) এর আমলেও অনেক আলেমের কবর পাকা হয়েছে। এছাড়া হযরত শাহজালাল (রহ.), হযরত মইনুদ্দিন চিশতি (রহঃ) সহ অনেক পীর আওলিয়ার কবর পাকা। এ বিষয়ে ইসলামের প্রকৃত

“সুখের নীড়” একটি অসাধারণ ছোট্ট গল্প ।

হঠাৎ নাকের কাছে কিছু একটার সুড়সুড়ি তে ঘুম ভেঙে গেলো। চোখ খুলে দেখি রিমা,ভেজা চুলে আমার মুখের উপড়ে ঝুকে আছে। আর চুল দিয়ে আমার ঘুম ভাঙানোর চেষ্টা করছে। আমি ঘুমের মাঝে রীমাকে জড়িয়ে ধরলাম। রিমা গোসল করে একটা হলুদ শাড়ী পরেছে। আমি রিমার মুখটির দিকে তাকিয়ে আছি অপলক দৃষ্টিতে। রিমা

পৃথিবীতে এমন একটি গ্রাম রয়েছে যেখানে প্রত্যেক পুরুষের দুই বউ।

ভারতের রাজস্থান রাজ্যের বার্মের জেলায় অবস্থিত একটি গ্রামের নাম দেরাসর । সব মিলিয়ে ওই গ্রামে ৭০টি পরিবার বসবাস করে থাকে। কিন্তু অবাক করার বিষয় হচ্ছে সে গ্রামে প্রত্যেক পুরুষেরই দু’জন করে স্ত্রী রয়েছে। এমন আশ্চর্য প্রথার পেছনে রয়েছে অন্য এক কাহিনী। জানা যায়, ওই গ্রামে সবমিলিয়ে ৬০০ মানুষের বাস। সবাই

‘ধর্ম ও উৎসবের মধ্যে কোন সংঘাত নাই।.

ধর্ম এবং উৎসবকে যারা এক করে ফেলতে চান তারা প্রকারন্তরে ধর্মকে মানুষের সহজাত পছন্দ থেকে দুরে ঠেলে দেয়া চেষ্টা বলেই প্রতিয়মান হয়। ধর্ম বিশেষ করে ইসলাম ধর্ম মুলত একটি শাসন ব্যবস্থা যা আল্লাহ তাহলা মানুষের জন্য নির্ধারন করে দিয়েছেন। ধর্মে মানুষের জন্য কিছু করনীয় এবং কিছু নিষিদ্ধ যা মানা হলো

স্মৃতি শক্তি বাড়াতে মহানবী (সা:) ৯টি কাজ করতে বলেছেন

আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যাদের কোন কিছু মনে থাকে না। আবার এমন কিছু ব্যক্তি রয়েছে, যারা কোন কিছু খুব বেশি দিন মনে রাখতে পারেন না। এমন সমস্যা মূলত দূর্বল স্মৃতিশক্তির কারণে হয়ে থাকে। স্মৃতিশক্তি বাড়াতে আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ৯টি কাজ করতে বলেছেন। সেগুলো হলো- ১. ইখলাস বা

যে সাত শ্রেণির মানুষকে কবরে কোনো প্রশ্ন করা হবে না !

মহান আল্লাহর অনুগ্রহে কিছু মানুষ এ বৈশিষ্ট্যের অধিকারী হবেন যে, তাকে কবরদেশে সুওয়াল জাওয়াবের সম্মুখীন হতে হবে না। এ বৈশিষ্ট্যের অধিকারীদের মধ্যে প্রথমে আসবে শহিদদের নাম। রাসুলে আরাবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, শহিদদেরকে কবরে প্রশ্ন করা হবে না। কেননা মাথায় তরবারির আঘাত কবরের বিপদ হতে কম নয়। যদি তার

মৃত্যুর কথা বেশি বেশি স্মরণ করলে পাপ কাজ থেকে বিরত থাকা যায়।

মৃত্যু এক অনিবার্য সত্যি, প্রতিটি মানুষকে মৃত্যুর স্বাদ পেতে হবে। কবর থেকে কেউ রেহাই পাবে না। তাই সদা সর্বদা কবরের কথা ভাবতে হবে। মুমিনদের জন্য কবর হলো জান্নাতে যাওয়ার প্রথম সোপান। আর পাপীদের জন্য কবর জাহান্নামের দরজা হিসেবে হাজির হয়। একদা নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মসজিদে গিয়ে দেখলেন, কিছু

নারীরা প্রতিটি রূপেই ভালবাসার এক অতুলনীয় প্রতীক।

এই ছবিটি দেখার পর আপনার মনের মাঝে হয়ত অনেক ধরণের প্রশ্ন জাগতে পারে। তবে ছবিটির সত্যতা জানার পর আপনার বিবেক একটু হলেও নাড়া দেবে এটা নিশ্চিত। ছবিটি ইউরোপের চিত্রশিল্প ‘মুরলির’ চিত্রায়ন করা। ইউরোপের একটি দেশে এক সময় এই লোকটিকে কোনো এক কারণে না খেয়ে মৃত্যুর শাস্তি দেওয়া হল। লোকটিকে কারাগারে